ইউক্রেনের হাসপাতালে বোমা হামলা

0
131

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ বেসামরিক লক্ষ্যবস্তুকে নিশানা করছে রাশিয়া। এমন অভিযোগ প্রথম থেকেই করে আসছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলদিমির জেলেনস্কি। প্রেসিডেন্ট ভলদিমির জেলেনস্কি এরই মধ্যে ন্যাটোকে আহ্বান জানিয়েছেন ইউক্রেনের আকাশে নো-ফ্লাই জোন স্থাপন করতে। যদিও ন্যাটো তার আহ্বানে সাড়া দেয়নি। এবার ইউক্রেন কর্তৃপক্ষ বলছে, মারিউপোলের শিশু ও প্রসূতি হাসপাতালে বোমা ছুড়েছে রাশিয়া।


বুধবার মারিউপোল শহরের কর্তৃপক্ষ অভিযোগ করে, রুশ দখলদার বাহিনী শহরের একটি শিশু ও প্রসূতি হাসপাতালে বোমা হামলা করেছে। কর্মকর্তারা জানান, হামলায় শিশু ও প্রসূতি বিভাগসহ হাসপাতালটিতে ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞ হয়েছে।
বার্তাসংস্থা এপি জানায়, রুশ বিমান হামলায় কমপক্ষে ১৭ জন আহত হয়েছেন। তবে এতে প্রাণহানির কোনো ঘটনা ঘটেনি।


এদিকে মারিউপোল শহরে শিশু হাসপাতালের ওপর রুশ বোমাবর্ষণের ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। হামলার ঘটনার ভিডিও ফুটেজসহ তিনি এক টুইটে বলেন, ‘নৃশংসতা, ধ্বংসাবশেষের নিচে মানুষ, শিশুরা চাপা পড়েছে।’
রাজধানী কিয়েভ থেকে দেওয়া এক ভিডিও বার্তায় প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি বলেন, ‘রাশিয়া আসলে কি ধরনের দেশ যে তারা হাসপাতাল এবং প্রসূতি হাসপাতালগুলোকেও ভয় পায় এবং সেগুলো ধ্বংস করে?’
জেলেনস্কি বলেন, ‘এটি ইতোমধ্যেই নৃশংসতার বাইরে চলে গেছে। রুশ সেনারা মারিউপোল শহরে যা করছে তা নৃশংসতার থেকেও বেশি। রাশিয়ার এই যুদ্ধাপরাধের নিন্দা জানাতে আমাদের অবশ্যই ঐক্যবদ্ধ হতে হবে, যা মূলত আমাদের দেশে রুশ সেনাদের নিয়ে আসা সকল আক্রমণ প্রতিহত করতে সাহায্য করবে।


ভিডিওবার্তার আগে দেওয়া এক টুইটে প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি অবিলম্বে ইউক্রেনের আকাশে ‘নো ফ্লাই জোন’ কার্যকরের আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘আপনাদের ক্ষমতা আছে কিন্তু আপনারা মানবতা হারিয়ে ফেলছেন।’
অবশ্য ন্যাটোভুক্ত অন্য দেশগুলো বারবারই নো-ফ্লাই জোনের দাবি প্রত্যাখ্যান করে আসছে।

আপনার মন্তব্য