সর্বশেষ

27.6 C
Rajshahi
বুধবার, জুলাই ২৪, ২০২৪

ইউক্রেনে যুদ্ধের মধ্যেই পড়ুয়ারা স্কুলে, চলছে মহড়া

টপ নিউজ ডেস্কঃ ইউক্রেনে রুশ হামলা শুরুর পরে গতকাল সোমবার প্রথমবারের মতো কিছুসংখ্যক প্রাক্-প্রাথমিক বিদ্যালয় খুলেছে। যুদ্ধ পরিস্থিতিতে এসব শিশুশিক্ষার্থী কীভাবে আত্মরক্ষায় পদক্ষেপ নেবে, বিমান হামলার সতর্কসংকেত বাজলে তারা কোথায় আশ্রয় নেবে, এই সব বিষয় নিয়ে তাদের প্রশিক্ষন দেওয়া হচ্ছে। খবর বিবিসির।


ইউক্রেনে এখনো বিভিন্ন শহরে রুশ হামলা অব্যাহত রয়েছে। মাঝে মধ্যে সেখানে বেজে উঠছে বিমান হামলাজনিত সতর্কসংকেত। এই হামলার মধ্যেই গতকাল খুলেছে কিছু প্রাক্-প্রাথমিক বিদ্যালয় । যুদ্ধ পরিস্থিতিতে তাদের পাঠদানের জন্য সেখানে নেওয়া হচ্ছে বাড়তি সতর্কতা।


ইউক্রেনে একটি কিন্ডারগার্টেন নেটওয়ার্ক পরিচালনা করেন সোলোমিয়া বইকোভিচ বিবিসিকে বলেন, বিমান হামলার সতর্কসংকেত বাজলে কোন বিধি অনুসরণ করতে হবে, সেই ব্যাপারে শিক্ষকরা বাচ্চাদের মহড়া চালানো হচ্ছে।‘বাস্তব জীবনে আমাদের তা চর্চার মধ্যে নিয়ে আসতে হলো। বাচ্চারা যখন ছুটে আশ্রয়কেন্দ্রের দিকে যাচ্ছিল, তখন আমি তাদের সঙ্গেই ছিলাম। আমি তাদের মধ্যে কোনো অস্থিরতা দেখতে পাইনি। সোলোমিয়া বইকোভিচ মনে করেন, শিশুরা এই মহড়াকে খেলা হিসেবে দেখেছে। মাটির ওপরে তারা যেভাবে খেলে, তেমন করে মাটির নিচের আশ্রয়কেন্দ্রে তারা খেলতে শুরু করে দিয়েছিল।
বিবিসিকে সোলোমিয়া বইকোভিচ আরও বলেন, তাঁর পরিচালনাধীন কিন্ডারগার্টেনগুলোর মধ্যে মাত্র একটি খোলা হয়েছে আশ্রয়কেন্দ্রের ভেতরে। সেখানে একটি খেলার জায়গাও আছে এবং বুক কর্নার ও আর্টস সেন্টার আছে।


বসোলোমিয়া ইকোভিচের ভাষ্য অনুযায়ী, যুদ্ধ শুরু হওয়ার আগেই তাঁরা পানি, কিছু খাবার, স্লিপিং ব্যাগ মজুত করতে শুরু করে দিয়েছিলেন।বসোলোমিয়া ইকোভিচের মতে, যুদ্ধ পরিস্থিতির কারণে সব ইউক্রেনীয় শিশুরই শিক্ষা কার্যক্রম মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে। তবে এই সব পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থীদের পাঠদানের জন্য প্রস্তুত করতে সময় লাগবে বলে মনে করেন তিনি।


বসোলোমিয়া ইকোভিচ আরও বলেন, ‘আমাদের এখন কিছুটা সময়ের প্রয়োজন। একুশ শতকের যুদ্ধ পরিস্থিতিতে কী করতে হবে, সেই বিষয়ে পরামর্শসংবলিত কোনো বই তো আমাদের কাছে নেই।’

সম্পাদনায়ঃ মোঃ আব্দুল ওয়াহেদ

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest Articles