সর্বশেষ

27.6 C
Rajshahi
মঙ্গলবার, জুলাই ২৩, ২০২৪

জসীমউদ্দিন হলের কক্ষ দখল নিয়ে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মধ্যে রড-স্টাম্প মহড়া

টপ নিউজ ডেস্কঃ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কবি জসীমউদ্দিন হল শাখায় কক্ষ দখলকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের কর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়েছে।পাল্টাপাল্টি ধাওয়া ও রড-স্টাম্প নিয়ে দুই ছাত্রলীগের পক্ষের কর্মীদের মুখোমুখি অবস্থানে ওই হলের সাধারণ ছাত্রদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এ ঘটনায় একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে হল প্রশাসন।


গতকাল রোববার রাত সাড়ে ১১টায় হলের একটি কক্ষে হামলা ও ভাঙচুরকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটে । পরে হলের ছাত্রলীগ সভাপতি সুমন খলিফা ও সাধারণ সম্পাদক লুৎফর রহমানের পক্ষের কর্মীরা রড-স্টাম্প নিয়ে মুখোমুখি অবস্থান নেয়। রাত দুইটা পর্যন্ত দুই পক্ষের মধ্যে এ উত্তেজনা চলে। খবর পেয়ে প্রাধ্যক্ষ মো. মুহাম্মদ আবদুর রশীদ জসীমউদ্দিন হলে আসেন। পরিস্থিতি ঠিক করতে তিনি রাত তিনটা পর্যন্ত হলে ছিলেন।


প্রত্যক্ষদর্শী জসীমউদ্দীন হলের কয়েক ছাত্র বলেন, লুৎফর রহমানের অনুসারীদের একটি অংশ গতকাল রাতে সুমন খলিফার পক্ষের নিয়ন্ত্রণে থাকা হলের কক্ষ দখল করতে যান। এই সময় জসীমউদ্দিন হলের ওই কক্ষটির জিনিসপত্র ভাঙচুর করা হয়। এই ঘটনায় সংস্কৃত বিভাগের মোঃ মোহিত, উর্দু বিভাগের মোঃ রাসেল,ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের ইসমাইল হোসেন এবং আন্তর্জাতিক বিভাগের আশিকুর রহমান নেতৃত্ব দেন।


এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে সুমন খলিফার অনুসারীরা রড ও স্টাম্প নিয়ে বের হয়। তাঁদের নেতৃত্বে ছিলেন রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের শাহরিয়ার সাগর , সমাজবিজ্ঞান বিভাগের মোঃ সোহান এবং সাংবাদিকতা বিভাগের হেদায়েতুল ইসলাম।


লুৎফর রহমানের অনুসারীরাও এই সময় রড-স্টাম্প নিয়ে বের হয়। ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মধ্যে কয়েক দফায় ধাক্কাধাক্কি ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। দুই পক্ষের এমন মুখোমুখি অবস্থানে জসীমউদ্দীন হলে আতংক ছড়িয়ে পড়ে।


শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সুমন খলিফা বলেন, ঘটনাটি অনাকাঙ্ক্ষিত। ছাত্রলীগের সভাপতি আশা করেন, ভবিষ্যতে এমন ঘটনা আর ঘটবে না।

সাধারণ সম্পাদক লুৎফর রহমান বলেন, তাঁদের মধ্যে ভুল–বোঝাবুঝির করনে এমন ঘটনা ঘটে। পরে তারা নিজেরা বসে বিষয়টি সমাধান করে নিয়েছেন।
জসীমউদ্দীন হলের প্রাধ্যক্ষ মুহাম্মদ আবদুর রশীদ বলেন এই ঘটনায় পাঁচ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে ।


মুহাম্মদ আবদুর রশীদ আরও বলেন, হলের আবাসিক শিক্ষক রেজাউল করিমকে প্রধান করে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে এবং তিন দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। প্রতিবেদন অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে।

সম্পাদনায়ঃ মোঃ আব্দুল ওয়াহেদ

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest Articles