নগরীতে গৃৃহবধুর রহস্যজনক লাশ উদ্ধার

0
41

টপ নিউজ ডেস্কঃ রাজশাহী মহানগরীতে এক সৌদি প্রবাসী স্ত্রীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ শুক্রবার (৫ আগস্ট) সকালে নগরীর দাশপকুর ডিসির মোড় এলাকার থেকে রাজপাড়া থানা পুলিশ খবর পেয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় নিহতের লাশ উদ্ধার করে। জানা গেছে, উদ্ধারকৃত সৌদি প্রবাসীর স্ত্রীর নাম রুপালি খাতুন (২৫) । তার স্বামী হারুন অর রশিদ। সে নওগাঁ জেলার আত্রাই উপজেলার মির্জাপুর ভাবানীপুর গ্রামের বাসিন্দা। আর নিহত রুপালি খাতুন রাজশাহী জেলার বাগমারা উপজেলার বাজিয়াকোলা গ্রামের হাসান আলীর মেয়ে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, রুপালি খাতুন দাশপকুর ডিসির মোড় এলাকায় মোসাদ্দেকুর রহমানের বাসায় দ্বিতীয় তলায় ভাড়া থাকতেন। তার কোন সন্তান না থাকায় সে একাই বসবাস করতো। শুক্রবার সকালে বাড়ীর মালিকের বড় ছেলে আবু বক্কর সিদ্দিক ফজরের নামাজের জন্য ওযু করতে গেলে বাড়ীর গেটের সামনে বিবস্ত্র অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে বাড়ীর অন্যান্যদের খবর দিলে ঘটনা জানাজানি হয়। পরে বাড়ীর মালিকের স্ত্রী লাভলী বেগম রাজপাড়া থানা পুলিশকে খবর দিলে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। সংবাদ মাধ্যমকে বাড়ীর মালিকের স্ত্রী লাভলী বেগম জানান, আমার বড় ছেলে ফজরের সময় নামাজের জন্য ওযু করতে গেল সিঁড়ির নিচে গেটের সামনে বিবস্ত্র অবস্থায় রুপালির মরদেহ পড়ে ছিলো। তা দেখে আমাদের বললে মরদেহ দেখতে পাই। বিবস্ত্র মরদেহটি ওড়না দিয়ে ঢেকে দিয়ে পুলিশ কে খবর দিয়ে পুলিশ এসে তার মরদেহ উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

এদিকে নিহত রুপালি খাতুনের ভাই রফিক অভিযোগ করেন, তার ভগ্নীপতি দীর্ঘদিন থেকে বিদেশে থাকে। আমার বোনের সাথে ঝগড়াঝাটি চলে আসছিলো। তার বোন হারুন অর রশিদের দ্বিতীয় স্ত্রী। তাকে ভাত দিবে না বলে নানান ভাবে ভয়ভীতি দেখাতো । এখানে তার শ্যালকরা থাকে এবং প্রথম স্ত্রীও এই হত্যার সাথে জড়িত থাকতে পারে। তাকে পরিকল্পিত ভাবে মারা হয়েছে বলে জানান। আমি এর সুষ্ঠ তদন্ত করে দোষীদের চিহিৃত করে দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবি করছে।

রাজপাড়া মডেল থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলম সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, আমরা খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছি। প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে বাড়ীর তিনতলা থেকে পড়ে মারা গেছে। ময়না তদন্ত পেলে আসল ঘটনা জানা যাবে। প্রাথমিক ভাবে জিজ্ঞাসা বাদের জন্য বাড়ীর মালিকের তিন ছেলেকে থানায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছে বলেও জানান ওসি।

সম্পাদনায়ঃ শাহাদাত হোসাইন

আপনার মন্তব্য