সর্বশেষ

30.8 C
Rajshahi
বুধবার, জুলাই ১৭, ২০২৪

ফিশ কাটলেট তৈরির পদ্ধতি

মাছ খেতে অনেকেরই অনীহা রয়েছে, বিশেষ করে বাচ্চারা তো একদমই মাছ খেতেই চায় না। ভুনা  বা ভাজি ছাড়াও মাছ দিয়ে অনেকরকম মজাদার আইটেম কিন্তু   তৈরি করা যায়। তেমনই অন্যতম একটি স্ন্যাকস হচ্ছে ফিশ কাটলেট! মাছ দিয়ে কম সময়ে বাড়িতেই হেলদি ও টেস্টি কাটলেটটি বানিয়ে নেয়া যায় সহজেই। যারা মাছ খেতে একদমই পছন্দ করে না, তারাও কিন্তু এটা মজা করে খাবে। তাহলে চলুন জেনে নিন, ফিশ কাটলেট তৈরির সবচেয়ে সহজ রেসিপিটি!

উপকরণ

  • বড় ধরনের মাছের পেটি- ৬ পিস
  • লেবুর রস লাগবে- ১ চা চামচ
  • সেদ্ধ করে রাখা আলু– ১টি
  • সয়াসস- ১ টেবিল চামচ
  • ধনেপাতা-  ২ চা চামচ
  • গোলমরিচের গুঁড়া                                                                                              – ১ চা চামচ
  • লবণ- স্বাদ অনুযায়ী
  • টমেটো কেচাপ – ২ চা চামচ
  • ডিম  – ১টি
  • কর্ণফ্লাওয়ার – ১ টেবিল চামচ
  • চাট মসলা – ১/২ চা চামচ
  • কালোজিরা – ১/২ চা চামচ
  • তেল – ভাজার জন্য

প্রস্তুত প্রণালী

১) এই রেসিপিতে রুই, কাতলা, ভেটকি, পাঙ্গাশ কিংবা যেকোনো বড় মাছের পেটি ব্যবহার করা যেতেপারে। প্রথমে চুলার উপর একটি প্যান বসিয়ে তাতে অল্প পরিমান পানি দিয়ে মাছের টুকরাগুলো দিয়ে দিন। তার সাথে একটু লবণও দিয়ে দিতে হবে।

) কিছুক্ষণের মধ্যেই পানি টেনে শুকিয়ে যাবে এবং সেই সাথে মাছটাও সেদ্ধ হয়ে যাবে। এরপর মাছগুলোর তেলের অংশটি বাদ দিয়ে ও কাঁটা বেছে ম্যাশ বা ভর্তা করে রাখুন।

৩) এবার আলাদা অন্য একটি পাত্রে সেদ্ধ করে রাখা আলু, ধনেপাতা, লবণ, সয়াসস, কালোজিরা, চাট মসলা, মাছ ভর্তা, টমেটো কেচাপ, গোলমরিচের গুঁড়ো এবং লেবুর রস দিয়ে ভালোভাবে মাখিয়ে নিন।

৪) তারপর ডিম ফেটিয়ে নিয়ে তাতে কর্ণফ্লাওয়ার গুলিয়ে নিয়ে মিশ্রণটিতে ঢেলে দিন। সব উপকরণ একসাথে হাত দিয়ে চটকিয়ে নিতে হবে।

) হাতের তালুতে একটু তেল মেখে মাছের এই মিশ্রণ থেকে একটু একটু করে নিয়ে কাটলেটের আকারে শেইপ দিয়ে শুকনো কর্ণফ্লাওয়ারে এটি গড়িয়ে নিন। আপনার পছন্দ অনুযায়ী ছোট অথবা মাঝারী আকারে কাটলেটের শেইপ করে নিবেন।

৬) অন্যদিকে অন্য একটি প্যানে তেল গরম করতে দিন। এই কাটলেটটি আপনি ডীপফ্রাই করতে পারেন অর্থাৎ ডুবো তেলেও ভাজতে পারেন। আবার অল্প তেল দিয়ে ফ্রাই করেও নিতে পারেন।

) তেলটি গরম হয়ে গেলে ফিশ কাটলেটগুলো একটি একটি করে প্যানে ছাড়ুন। একপাশ ভাজা হয়ে গেলে সাবধানে উল্টেয়ে দিন।

) যেহেতু মাছগুলো আগেই সেদ্ধ করে নেয়া হয়েছে, তাই তা খুব বেশি ভাজার প্রয়োজন হয় না! গোল্ডেন কালার হয়ে গেলেই তেল থেকে তা নামিয়ে কিচেন টিস্যুতে রাখুন। এতে টিসু এক্সট্রা তেল শুষে নেবে।

ব্যস, গরম গরম ফিশ কাটলেট রেডি হয়ে গেলো ! এবার আপনার  পছন্দের সস দিয়ে পরিবেশন করুন। স্ন্যাকস হিসাবে তো বটেই, পোলাও বা গরম ভাতের সাথেও এটি সার্ভ করা যেতে  পারে। তাহলে, হাতের কাছে সব উপকরণ থেকে থাকলে আজই বানিয়ে ফেলুন মজাদার ফিশ কাটলেট!

ছবি- সংগৃহীত: অর্চনাসকিচেন.কম

সম্পাদনা: নাসরিন ইসলাম

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest Articles