সর্বশেষ

22.4 C
Rajshahi
Tuesday, January 18, 2022

Tuesday, January 18, 2022

বাগদাদে বিয়ের আসরেই স্ত্রীকে তালাক দিলেন বর !

রাজশাহীর থিম ওমর প্লাজায় বিনিয়োগের সুবর্ণ সুযোগ ঈদুল ফিতর উপলক্ষে অল্প কিছু সংখ্যক ফ্ল্যাট ও দোকান বিক্রয় চলছে। এককালীন মূল্য পরিশোধে বিশেষ মূল্য ছাড় !! যোগাগোঃ 01615-33 22 29,01615-33 22 51. Theme Omor Plazaকম্পিউটার,কম্পিউটার এক্সেসরিজ ও মোবাইল মোবাইল এক্সেসরিজ. এবং ইলেকট্রনিক্স পন্য মেলা দোকান স্টল বুকিং ও রেজিস্ট্রেশন চলছে। যোগাযোগ-০১৬১৫-৩৩২২২৯,০১৬১৫-৩৩২২৫১,০১৬১৫-৩৩২২২৬ , ০১৭১৯-২৫০২৪২,০১৭২১-১৮৪৮৩১

টপ নিউজ ডেস্ক :  আজকাল তুচ্ছ কারণ নিয়ে বিয়ে ভেঙে যাওয়ার ঘটনা বিরল নয়। তবে তুচ্ছ কারণে বিয়ের আসরেই স্ত্রীকে তালাক দেওয়ার ঘটনা বেশি নেই। এই তরুণ বিয়ের আসরে ‘বিশেষ’ একটি গানের জন্য স্ত্রীকে তালাক দিয়েছেন। গালফ নিউজ এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে। ডিবিসি টিভি

যুদ্ধবিধ্বস্ত ইরাকের বাগদাদে এই ঘটনা ঘটে বলে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। বিয়ের আসরে একটি সিরিয়ার ‘উসকানিমূলক’ গানের কারণেই স্ত্রীকে তালাক দেন ওই যুবক।

- - Advertisement - -

সিরিয়ার গায়ক লামিস কানের গাওয়া ‘মেসায়তারা’ শিরোনামের গানটিই বিয়ের আসরে ওই দম্পতির বিচ্ছেদের অন্যতম কারণ বলে স্থানীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। সিরিয়ান ওই গানটির বাংলা অর্থ করলে দাঁড়ায় ‘আমি তোমাকে নিয়ন্ত্রণ করব’। তবে কনে কিন্তু মোটেও ওই গানটি গাচ্ছিলেন না। তার ‘অপরাধ’ ছিল ওই গানের তালে তালে নাচা!

স্থানীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিয়ের আসরে ‘মেসায়তারা’ গানের তালে তালে নাচচ্ছিলেন ওই কনে। বর আর তার পরিবার বিশেষ ওই গানের সঙ্গে নাচকে উসকানি হিসেবেই দেখছিলেন। তাই বর প্রথমে এ নিয়ে কনের সঙ্গে বাকবিতণ্ডা শুরু করেন। এক পর্যায়ে বিয়ের আসরেই কনেকে তালাক দেন।

মধ্যপ্রাচ্যে অবশ্য এই বিশেষ গানটির কারণে নববিবাহিতদের বিচ্ছেদের ঘটনা বিরল নয়। গত বছর জর্ডানের এক যুবক বিয়ের আসরে এই গান বাজানোর জন্য নববধূকে তালাক দিয়েছিলেন।

নিশ্চয়ই জানতে কী আছে বিশেষ এই গানে যার জন্য বিয়ের আসরেই বিচ্ছেদের ঘটনা ঘটল। সিরিয়ান গানটির বাংলা করলে অনেকটা এ রকম অর্থ হয় :

‘আমি তোমাকে নিয়ন্ত্রণ করব; আমার কঠোর নির্দেশে তোমাকে শাসন করা হবে;
‘যদি তুমি রাস্তায় অন্য মেয়েদের দিকে তাকাও আমি তোমাকে পাগল করে দেব;
‘হ্যাঁ, আমি তোমাকে নিয়ন্ত্রণ করব;
‘তুমি আমার সোনা;
‘যতদিন তুমি আমার সঙ্গে থাকবে, ততক্ষণ তুমি আমার নির্দেশে চলবে;
‘আমি অহংকারী, আমি অহংকারী।’

সূত্র:  যুগান্তর

- Advertisement -