সর্বশেষ

22.4 C
Rajshahi
Tuesday, January 18, 2022

Tuesday, January 18, 2022

বিতর্কিত মেয়র আব্বাসের ৩দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

রাজশাহীর থিম ওমর প্লাজায় বিনিয়োগের সুবর্ণ সুযোগ ঈদুল ফিতর উপলক্ষে অল্প কিছু সংখ্যক ফ্ল্যাট ও দোকান বিক্রয় চলছে। এককালীন মূল্য পরিশোধে বিশেষ মূল্য ছাড় !! যোগাগোঃ 01615-33 22 29,01615-33 22 51. Theme Omor Plazaকম্পিউটার,কম্পিউটার এক্সেসরিজ ও মোবাইল মোবাইল এক্সেসরিজ. এবং ইলেকট্রনিক্স পন্য মেলা দোকান স্টল বুকিং ও রেজিস্ট্রেশন চলছে। যোগাযোগ-০১৬১৫-৩৩২২২৯,০১৬১৫-৩৩২২৫১,০১৬১৫-৩৩২২২৬ , ০১৭১৯-২৫০২৪২,০১৭২১-১৮৪৮৩১

টপ নিউজ ডেস্কঃ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল স্থাপন নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যকারী রাজশাহীর কাটাখালী পৌরসভার মেয়র আব্বাস আলীর ৩ দিনের রিমান্ড আবেদন মঞ্জুর করেছে আদালত।

সোমবার (৬ ডিসেম্বর) দুপুর ১ টার দিকে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত-২ এর বিচারক শংকর কুমার রিমান্ড শুনানি শেষে তার ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এর আগে সকাল পৌণে ১ টার দিকে আব্বাস কে নিয়ে পুলিশের একটি দল আদালত চত্বরে পৌঁছায়। এরপর তাকে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করে ১০ রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের আবেদন করে বোয়ালিয়া মডেল থানা পুলিশ।

- - Advertisement - -

আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন মেট্রোপলিটন আদালত ২ এর পিপি এ্যাড. মোসাব্বির ইসলাম। এদিকে, আসামিপক্ষের আইনজীবীরা রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিন আবেদন করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে মেয়র আব্বাসের ৩দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। এ বিষয়ে মেট্রোপলিটন আদালতের পিপি এ্যাড. মোসাব্বিরু ইসলাম টপ নিউজকে জানান, উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত মেয়র আব্বাসের তিন দিনের রিমান্ড আবেদন মঞ্জুর করেছেন।

এছাড়াও এ ঘটনার সাথে আর অন্য কেউ জড়িত আছে কিনা সেই বিষয়টি মামলার আদালতকে তদন্তের নির্দেশনা দিয়েছেন। অপরদিকে, আব্বাসকে আদালতে তোলাকে কেন্দ্র করে জোরদার করা হয় আদালত এলাকার নিরাপত্তা।এসময় আদালত চত্বরে প্রবেশে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়। কোনো ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে তৎপর দেখা যায় পুলিশ সদস্যদের।

উল্লেখ্য, পহেলা ডিসেম্বর রাজধানীর একটি হোটেল থেকে র‍্যাবের সদস্যরা পৌর মেয়র আব্বাসকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় গ্রেফতার করে।পরে গত ২ ডিসেম্বর র‍্যাবের পক্ষ থেকে রাজশাহী মহানগর বোয়ালিয়া মডেল থানা পুলিশের কাছে পৌর মেয়র আব্বাসকে হস্তান্তর করা হয়। পরে সেদিন সকালে আব্বাস আলীকে ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন জানিয়ে বোয়ালিয়া মডেল থানা পুলিশ আদালতে সোপর্দ করে। ওই দিন রিমান্ড আবেদনের ওপর শুনানি না হওয়ায় আদালতের নির্দেশে আব্বাসকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়। জানা যায়,রাজশাহী মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ও কাউন্সিলর আব্দুল মোমিনের দায়ের করা মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়। মূলত রাজশাহীর সিটি গেটে জাতির পিতার ম্যুরাল স্থাপন নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের কারণে মেয়র আব্বাস আলীর বিরুদ্ধে তিন থানায় তিনটি এজাহার জমা হলেও একটি মামলা হিসেবে গণ্য হয়। অন্যদিকে জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও পৌর আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক পদ থেকে আব্বাস আলীকে অব্যাহতি দেয় স্থানীয় আওয়ামী লীগ। মেয়র পদেও আব্বাস আলীর প্রতি অনাস্থা জানান পৌরসভার সব কাউন্সিলর।

সম্পাদনাঃ এ এইচ রাজীব

- Advertisement -