সর্বশেষ

17 C
Rajshahi
Sunday, January 23, 2022

Sunday, January 23, 2022

রাবির দুই শিক্ষার্থীকে মানসিক হয়রানির অভিযোগ

রাজশাহীর থিম ওমর প্লাজায় বিনিয়োগের সুবর্ণ সুযোগ ঈদুল ফিতর উপলক্ষে অল্প কিছু সংখ্যক ফ্ল্যাট ও দোকান বিক্রয় চলছে। এককালীন মূল্য পরিশোধে বিশেষ মূল্য ছাড় !! যোগাগোঃ 01615-33 22 29,01615-33 22 51. Theme Omor Plazaকম্পিউটার,কম্পিউটার এক্সেসরিজ ও মোবাইল মোবাইল এক্সেসরিজ. এবং ইলেকট্রনিক্স পন্য মেলা দোকান স্টল বুকিং ও রেজিস্ট্রেশন চলছে। যোগাযোগ-০১৬১৫-৩৩২২২৯,০১৬১৫-৩৩২২৫১,০১৬১৫-৩৩২২২৬ , ০১৭১৯-২৫০২৪২,০১৭২১-১৮৪৮৩১
- Advertisement -

টপ নিউজ ডেস্ক : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) দুই ছাত্রীকে মানসিকভাবে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার (৪ মার্চ) বিকেল সাড়ে চারটায় কাজলা গেটে এ ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা এ বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট করেন। তারা লিখেন, ‘বৃহস্পতিবার (৪ মার্চ) বিকেল সাড়ে চারটায় একজন বান্ধবীর সাথে ক্যাম্পাসে ঢুকি কাজলা গেট দিয়ে।

তার ব্যাক পেইনের কারনে সে মসজিদের সামনে দাঁড়ালে হঠাৎ একজন শিক্ষক চিৎকার ও ঝাড়ি দিয়ে বললেন যে, এই মেয়ে এখান থেকে যাও। লজ্জাশরম নেই? মসজিদের সামনে দাঁড়িয়েছ কেন? আমরা সেখান থেকে চলে যাচ্ছিলাম তখন সিভিল ড্রেসে যে পুলিশ ছিলেন, তিনি গালাগালি শুরু করে দিয়েছেন। ‘আপনাদের ড্রেসআপ এর ঠিক নেই নির্লজ্জ, আপনাদের ওড়না ঠিক নেই, বেয়াদব মেয়ে মানুষ। আরও লিখেন, ‘এক মহিলা এসে বলছে, বেয়াদব মেয়ে এখনো ওড়না দিয়ে শরীর ঢাকোনি তর্ক করছো? আর সাথে সেই শিক্ষক নামাজ পড়তে না গিয়ে উনি হুকুম দিলেন, আমাদের আইডি কার্ড রেখে দেওয়ার। আমরা হাটছিলাম তখন উনি আমাদের কে ধরে আনার জন্য বললেন এবং এদের আইডি কার্ড রেখে দাও, সেই পুলিশ ও সুযোগ পেলেন এবং আরও কিছু কথা শুনিয়ে বললেন, আইডি কার্ড দেন আপনাদের শিক্ষক বলছে, আইডি কার্ড দেন না হলে বের হোন এক্ষনি ক্যাম্পাস থেকে অতঃপর মানসম্মানের ভয়ে নিজেরা ক্যাম্পাস থেকে বের হয়ে আসলাম। ভার্সিটিতে বলে দেওয়া হোক কোন ড্রেস আপ এ গেলে এভাবে শিক্ষার্থীদের হ্যারাস হতে হবে না কাজলা গেটের এর পুলিশ দ্বারা। তাদের কি নির্ধারিত করা হয়েছে মেয়েদের ড্রেস দেখার জন্যে?’

- - Advertisement - -

ভুক্তভোগী একজন বলেন, আমরা আগামীকাল রোববার (৭ মার্চ) বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর দপ্তর ও যৌন নিপীড়নবিরোধী সেলে লিখিত অভিযোগ করবো।’ এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান বলেন, ‘কাজলা গেটের ঘটনাটি শুনেছি। শিক্ষার্থীরা লিখিত অভিযোগ দিলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

- Advertisement -