সর্বশেষ

17 C
Rajshahi
Sunday, January 23, 2022

Sunday, January 23, 2022

সিলেটে মেঝেতে রক্তাক্ত লাশ, দা ফেলে পালাল যুবক

রাজশাহীর থিম ওমর প্লাজায় বিনিয়োগের সুবর্ণ সুযোগ ঈদুল ফিতর উপলক্ষে অল্প কিছু সংখ্যক ফ্ল্যাট ও দোকান বিক্রয় চলছে। এককালীন মূল্য পরিশোধে বিশেষ মূল্য ছাড় !! যোগাগোঃ 01615-33 22 29,01615-33 22 51. Theme Omor Plazaকম্পিউটার,কম্পিউটার এক্সেসরিজ ও মোবাইল মোবাইল এক্সেসরিজ. এবং ইলেকট্রনিক্স পন্য মেলা দোকান স্টল বুকিং ও রেজিস্ট্রেশন চলছে। যোগাযোগ-০১৬১৫-৩৩২২২৯,০১৬১৫-৩৩২২৫১,০১৬১৫-৩৩২২২৬ , ০১৭১৯-২৫০২৪২,০১৭২১-১৮৪৮৩১
- Advertisement -

টিপ নিউজ ডেস্ক :  সিলেটের বিয়ানীবাজারে নিজ বাড়ির কক্ষে স্কুলছাত্রীকে দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে নাজিম উদ্দিন নামে এক যুবক। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলা শেওলা ইউনিয়নের বালিঙ্গা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত স্কুলছাত্রী নাজমিন আক্তার বালিঙ্গা উচ্চবিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী ছিলেন।

- - Advertisement - -

খবর পেয়ে বিয়ানীবাজার থানা-পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে মেয়েটির লাশ উদ্ধার করেছে। অভিযুক্ত নাজিমকে ধরতে পুলিশের একটি দল ওই এলাকায় অভিযান চালিয়েছে।

পুলিশ সূত্র জানিয়েছে, ঘটনার পর থেকে নাজিম পলাতক। তিনি নাজমিনকে কুপিয়ে হত্যা করেছেন বলে দু’জন প্রত্যক্ষদর্শী পাওয়া গেছে। নাজমিনের গলায় একটি গভীর কোপ ও থুতনিতে আরও দুটো কোপ রয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে হত্যায় ব্যবহৃত দা উদ্ধার করা হয়েছে।

নাজমিন স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি সামসুল হক চৌধুরী ওরফে কস্তই মিয়ার পালিত কন্যা। পরিবারে সামসুল হকের স্ত্রী, এক ছেলে ও ছেলের বউ রয়েছেন। ঘটনার সময় বাড়িতে কোনো পুরুষ লোক ছিলেন না। নাজমিনের পালিত মা ও ভাবি দুপুরের রান্না করতে পেছনের একটি কক্ষে ছিলেন। নাজমিন তখন একাই টেলিভিশন দেখছিলেন।

ওই বাড়ির প্রতিবেশী ও শেওলা ইউপির সদস্য আবুল কালাম খান শেখ বলেন, পাকা মেঝেতে হঠাৎ দা পড়ার শব্দ শুনে রান্নাঘরে থাকা নাজমিনের মা ও ভাবি এসে দেখেন মেয়েটি রক্তাক্ত অবস্থায় মেঝেতে পড়ে আছে। নাজিমের হাতে তখন রক্তমাখা দা। তাদেরকে দেখে নাজিম দা ফেলে পালিয়ে যান।

পলাতক নাজিমের বাড়ি মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার নিজ বাহাদুরপুর এলাকায়। সামসুল হক চৌধুরীর পরিবার সূত্রে জানা গেছে, প্রায় এক বছর ধরে নাজিম ওই বাড়িতে আশ্রিত থেকে গৃহস্থালির কাজে সহায়তা করতেন। পূর্ব আক্রোশ থেকে ঘটনাটি ঘটতে পারে বলে প্রতিবেশীরা বলছেন। তবে কী আক্রোশ, এ বিষয়ে কিছু বলতে পারছেন না কেউ।

বিয়ানীবাজার থানার ওসি হিল্লোল রায় জানান, মেয়েটির বিয়ে দেয়ার কথাবার্তা হচ্ছিল বলে আমরা শুনেছি। নাজিম মেয়েটিকে বিয়ে করতে না পারার আক্রোশ থেকে এ ঘটনা ঘটাতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করেছে পুলিশ। পাশাপাশি পলাতক নাজিমকে ধরতে অভিযান চালানো হচ্ছে। 

সূত্র: ডেইলি-বাংলাদেশ

- Advertisement -