আষাঢ় মাসেও তীব্র গরম ও লোডশেডিংয়ে অতিষ্ট নগরবাসী

0
67

টপ নিউজ ডেস্কঃ এখন প্রকৃতিতে চলছে ভরা আষাঢ় মাসের মৌসুম। তবে এই আষাঢ়ে নেই একফোটা বৃষ্টির দেখা। আষাঢ় মাসে এসেও চৈত্রের মত রূদ্র আবহাওয়া বিরাজ করছে রাজশাহীতে। তীব্র খরায় পুড়ছে পথ-ঘাট। এই ভর আষাঢ়ও বৃষ্টিহীনতায় পার করছে রাজশাহীবাসী। বর্ষা মৌসুমে শুরুর পর থেকেই এমন অবস্থা বিরাজ করছে সারা রাজশাহীজুড়ে। সকাল থেকেই সুর্ষ দহনে ভ্যাপসা গরমে অতিষ্ঠ হয়ে উঠছেন সবাই। এমনকি রাতেও কমছে না সেই গরমের প্রকোপ। এর মধ্যে রয়েছে বিদ্যুতের লোডশিডিয়ংয়ের ভেলকিবাজি। ২৪ ঘন্টার মধ্যে ১১ ঘন্টা থাকলে বকি ঘন্টা গুলোতে থাকছেন্ বিদুৎ। একে তো ভ্যাপসা গরম। তার ওপর মাথার ওপরের বৈদ্যুতিক পাখাটাও সময় সময় স্থির হয়ে থাকছে। আর তখন মানুষ আরও অস্থির হয়ে উঠছেন। গরমের দাপটে ঘরে-বাইরে কোথাও স্বস্থির ছিটেফোঁটাও অবশিষ্ট নেই। বিদ্যুতের আসা-যাওয়া লেগেই আছে রাজশাহীতে। রাজশাহী মহানগরীর মধ্য ও নিম্নাঞ্চলের বিভিন্ন এলাকায় বিদ্যুৎ থাকছেই না। এতে জনজীবনে আরও অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। নিদারুণ কষ্টে দিনযাপন করছে নগরবাসীরা।

রাজশাহী মহানগরীর বিভিন্ন পয়েন্ট যেমন, সাহেববাজার জিরোপয়েন্ট, আলুপট্টি, রানীবাজার,সাগরপাড়া, রেলগেট, শালবাগান, লক্ষ্মীপুর সহ ‍বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, রিক্সাচালক সহ সাধারণ শ্রমজীবী মানুষরা গরমের তীব্রতায় হাঁসফাঁস করছেন। অনেকেই গাছের ছায়া খুঁজে সেখানে একটু জিরিয়ে নিচ্ছেন। এদিকে বেড়েছে রাস্তার পাশের দোকানগুলোতে কোমলপানীয় বিক্রি। গরম থেকে বাঁচতে নিম্নমাণের বিভিন্ন পানীয় পান করছেন পথচারীরা। আর সচেতন মানুষ বেশি টাকা দিয়ে ডাবসহ বিভিন্ন ধরনের শরবত পান করছেন। গরমে ডাবের দামও আগুন! ছোট একটি ডাব ৫০ থেকে ৬০ টাকা। মাঝারি ও বড় ডাব ১০০ টাকায় বিক্রি করতে দেখা যাচ্ছে।

একজন ডাব বিক্রেতার সাথে কথা হয় এ প্রতিবেদকের, বেশি দাম নেয়ার কারণ জানতে চাইলে বিক্রেতারা জানান তারাও বেশি দামে কিনে আনার কারণে তাদেরকে বেশি দামে বিক্রি করতে হচ্ছে। এদিকে আবহাওয়া অফিস বলছে, রাজশাহীর সর্বোচ্চ তাপমাত্রা এখনও ৩৫ থেকে ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যেই ওঠানামা করছে। এর মধ্যে গত বৃহস্পতিবার দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৫ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গত শুক্রবার ছিলো ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর গত শনিবার ৩৫ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। সর্বশেষ গত পরশু রবিবার রাজশাহীতে তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৩৬ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা সারা দেশে সর্বচ্চো তাপমাত্রার রেকর্ড। এদিকে আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, আষাঢ় মাস শুরুর পর থেকে এই পর‌যন্ত গত ১৯ দিনে রাজশাহীতে বৃষ্টিপাত হয়েছে মাত্র ৩৬ মিলিমিটার।

সম্পাদনায়ঃ শাহাদাত হোসাইন

আপনার মন্তব্য