খাদ্যভান্ডার খ্যাত বরেন্দ্র অঞ্চল নওগাঁয় আম উৎপাদনে সেরা

0
73

মোঃ রুবেল হোসেন, নওগাঁঃ খাদ্যভান্ডার খ্যাত বরেন্দ্র অঞ্চলের নওগাঁর জেলা আম উৎপাদনে দেশজুড়ে ব্যাপক খ্যাতি অর্জন করেছে। মৌসুমের আম নামানো শীগ্রই শুরু হতে যাচ্ছে । বেঁধে দেওয়া সময় মেনে বাগান থেকে আম সংগ্রহ শুরু হবে। (২৫ মে) প্রথমদিন নামানো (পাড়া) হচ্ছে স্থানীয় গুটি জাতের আম।
ধান-চালের রাজ্যে খাটো খাটো গাছে এখন আমের রাজত্ব। অধিক লাভজনক হওয়ায় ক্রমেই বৃদ্ধি পাচ্ছে বাগান।


জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের তথ্যমতে, ২০২১/২২ মৌসুমে নওগাঁয় ২৯ হাজার ৪৭৫ হেক্টর জমিতে আম চাষ হয়েছে। এরমধ্যে পোরশা উপজেলায় ১০ হাজার ৫২০, সাপাহারে ১০ হাজার, পত্মীতলায় ৮ হাজার ৮৬৫, নিয়ামতপুরে ১ হাজার ১৩৫, মহাদেবপুরে ৬৮০, ধামইরহাটে ৬৭৫ হেক্টর। এছাড়া বদলগাছীতে ৫২৫, নওগাঁ সদরে ৪৪৫, মান্দায় ৪০০, আত্রাইয়ে ১২০ ও রানীনগরে ১১০ হেক্টর। এ পরিমাণ জমি থেকে ৩ লাখ ৬৮ হাজার ৪৩৫ মেট্রিক টন উৎপাদন লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে কৃষি বিভাগ। এবার প্রায় ১ হাজার ৮৪২ কোটি ১৭ লাখ টাকার আম বাণিজ্যের সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তারা

বৈশাখে পরিপক্ব হওয়া এই জাতের আম দিয়েই সংগ্রহের আনুষ্ঠানিকতা শুরু করবেন বাগানিরা।

অসময়ে আম সংগ্রহ বন্ধ রাখতে গত কয়েক বছরের ধারাবাহিকতায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী ২৫ মে থেকে গুটি আম পাড়তে পারছেন চাষিরা।

আমজাদ শাহ্, আমিনুল শাহ্সহ ৪০-৫০ জন আমচাষি জানান, আম্রপালি, বারি-৪, গৌড়মতি, নাগফজলি, ফজলি, আর্শ্বিনা, হিমসাগর, গোপলভোগ, লেংড়া ও খিরশাপাত জাতের আম চাষ করেছেন। পোকা-মাকড় ও রোগ-বালাই এর আক্রমণ থেকে রক্ষা পেতে কীটনাশক স্প্রে ও পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করছেন চাষিরা। অধিক লাভজনক হওয়ায় প্রতি বছরই আম চাষ বাড়ছে বলেও জানান তারা।
নওগাঁ জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক শামছুল ওয়াদুদ সাংবাদিকদের জানান, গত বারের চেয়ে জেলায় এবার ৩ হাজার ৬২৫ হেক্টর জমিতে বেশি আম চাষ বেশি হয়েছে। এ মৌসুমে বড় পরিসরে রপ্তানীর চিন্তা করা হচ্ছে।

আম গবেষণা কেন্দ্র, সংরক্ষাণাগার স্থাপন ও বিশ্ববাজারে রপ্তানী বৃদ্ধি করতে কৃষি বান্ধব সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ সংশ্লিষ্টদের সুদৃষ্টি কমানা করেছেন নওগাঁর লাখো কৃষক।

আপনার মন্তব্য