সর্বশেষ

30.2 C
Rajshahi
সোমবার, জুন ২৪, ২০২৪

নওগাঁয় কৃষক হত্যা মামলায় ১০ জনের যাবজ্জীবন ও ৩ নারী আসামী খালাস

নওগাঁ প্রতিনিধিঃ নওগাঁয় এক কৃষককে হত্যার মামলায় ১০জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ৩ নারী আসামীকে খালাস দিয়েছেন বিজ্ঞ আদালত। একই সঙ্গে প্রত্যেককে ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা ও অনাদায়ে আরও ২ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন বিজ্ঞ বিচারক। বুধবার দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত-২ এর বিচারক মোঃ ফেরদৌস ওয়াহিদ এ রায় ঘোষণা করেন।

মামলা সূত্রে জানান যায় সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- জেলার বদলগাছী উপজেলার দূর্গাপুর গ্রামের একই পরিবারের বজলুর রহমানের পাচঁ ছেলে কামরুজ্জামান, ওয়াহেদ আলী, সামসুজ্জামান, রকেট, ডাবলু ও একই গ্রামের ছাত্তারের ছেলে আব্দুল হামিদ,এনামুল এবং এমদাদুল হক এর ছেলে মোশারফ হোসেন, বজলুর রহমান, এমদাদুল হক উভয় পিতা মৃত: খাজামুদ্দিন। খালাস প্রাপ্ত আসামীরা হলেন, বদলগাছী উপজেলার দূর্গাপুর গ্রামের বজলুর রহমানের স্ত্রী কারিমা বেগম, একই গ্রামের এনামুলের স্ত্রী জলি আক্তার এবং জয়পুরহাট জেলার সদর থানার বাঁশকাটা গ্রামের হবিবর বয়ানীর মেয়ে জীবন এর বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ প্রমানিত না হাওয়ায় আদালত তাদেরকে খালাস প্রদান করেন।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, গত ২০১৩ সালের ০৫ মে দুপুরে আসামীরা দলবদ্ধ হয়ে একই গ্রামের একটি গভীর নলকুপের বিরোধকে কেন্দ্র করে ওই গ্রামের মৃত: মোকছেদ আলীর ছেলে ভিকটিম উজ্জল হোসেন (৪০) কে মারপিট করে হত্যা করে। এ ঘটনায় নিহতের চাচা মাজাহারুল ইসলাম ১৩ জনকে আসামী করে বদলগাছী থানায় মামলা করেন। বদলগাছীর থানা পুলিশ মামলাটি তদন্ত করে আদালতে র্চাজশিট দাখিল করলে মামলাটি বিচারের জন্য ওই আদালতে এলে বিজ্ঞ বিচারক উভয়পক্ষের শুনানি শেষে ১০জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ৩ নারী আসামীকে খালাসের আদেশ দেন।

এ মামলায় রাষ্ট্র পক্ষে বিজ্ঞ অতিরিক্ত পিপি এ্যাড.মোঃ আব্দুল বাকী ও আসামী পক্ষের বিজ্ঞ আইনজীবী মোঃ মামুনুর রশিদ-২ শুনানি করেন। রাষ্ট্র পক্ষে বিজ্ঞ অতিরিক্ত পিপি এ্যাড.মোঃ আব্দুল বাকী বলেন তিনদিন ধরে ১৮জন স্বাক্ষীর যুক্তিতর্ক শেষে বিজ্ঞ আদালতের বিচারক এ রায় দেন। আসামীর পক্ষের বিজ্ঞ আইনজীবী মোঃ মামুনুর রশিদ-২ বলেন, মামলাটি আসামীরা সব খালাস পাবে বলে আমি আশা করে ছিলাম কিন্তু বিজ্ঞ বিচারক এ ধরনের রায় দেওয়ায় আমি হতবাক হয়েছি। তবে এ মামালার রায়ের বিরুদ্ধ আসামী পক্ষ উচ্চ আদালতে আপিল করবেন বলে তিনি জানান। মামলার এজাহারকারী মাজাহারুল ইসলাম বলেন আমরা সুবিচার পেয়েছি।

সম্পাদনায়ঃ হাবিবা সুলতানা

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest Articles