নওগাঁর মান্দায় যুবক খুন

0
61

টপ নিউজ ডেস্কঃ নওগাঁর মান্দায় খুনের শিকার হন মঞ্জুরুল ইসলাম রিপন (২০) নামে এক যুবক ধারে নেওয়া ৫০০ টাকার জন্য । তথ্যপ্রযুক্তির সাহায্যে ঘটনার দুই মাস সাতদিন পর এ খুনের রহস্য পুলিশ উদঘাটন করে ।

নাঈম ইসলাম (১৯) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করা হয় । গ্রেপ্তারকৃত নাঈম ইসলাম উপজেলার মকবুল হোসেনের ছেলে দেলুয়াবাড়ি হঠাৎপাড়া এলাকার ।

সোমবার (৩১ মে ) বিকেলে নাঈম ইসলামকে নেওয়া হয় আদালতে । এসময় খুনের সঙ্গে নিজে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় প্রদান করে জবানবন্দি । নওগাঁ আমলী আদালত-২ (মান্দা) এর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তাজুল ইসলাম জবানবন্দি রেকর্ড করেন ।

নিহত রিপন উপজেলার নুরুল্লাবাদ ইউনিয়নের দোডাঙ্গী গ্রামের ছেলে আনোয়ার হোসেন পাইলটের । পেশায় তিনি ছিলেন কৃষিশ্রমিক ।

জবানবন্দির উদ্ধৃতি দিয়ে মান্দা থানার ওসি শাহিনুর রহমান জানান, গত ২৩ মার্চ দোডাঙ্গী গ্রামে আয়োজন করা হয় ইসলামি জালসার । এদিন সন্ধ্যার দিকে গ্রেপ্তারকৃত নাঈম ইসলাম তাঁর বন্ধু সুমনের সঙ্গে সেখানে যায় জালসা শোনার জন্য । রাত ১০ টার দিকে সিগারেট খাওয়ার জন্য জালসাবাড়ির পাশে নাঈম, সুমন ও রিপন বিলের মধ্যে যায়।

ওসি আরও জানান, নিহত রিপন বন্ধু সুমনের কাছ থেকে ধার নেন ৫০০ টাকা । তা পরিশোধ করেননি দীর্ঘদিন পরেও । বিলে সিগারেট খাওয়ার সময় সুমন তাঁর বন্ধু রিপনের কাছে দাবি করে পাওনা টাকা । এ নিয়ে বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে নাঈম গলা টিপে ধরলে অচেতন হয়ে পড়ে রিপন পানি খাওয়ার আকুতি জানিয়ে। পরে নাঈম ও সুমন পাশের ধানখেতের কাদায় মুখ চেপে ধরে রিপনকে হত্যা করে শ্বাসরোধে । এ সময় রিপনের মোবাইলফোন নিয়ে সড়ে পড়ে তাঁরা ঘটনাস্থল থেকে ।

সম্পাদনায়ঃ পূরবী রায় ।

আপনার মন্তব্য