সর্বশেষ

🎎✨🥼🥽🕶️🧦👗👘🥻👖🧣🩲🩱🩰👑👒👡👠🥾🥾👚👙🧥🕶️🎉📢📯📯দামে কম, মানে সেরা আমাদের পণ্য; কিনে হন ধন্য ।🎊 হ্যাঁ এবার 🎆ঈদে থিম ওমর প্লাজার Top Life style এ শপিং করে জিতে নিন আকর্ষণীয় সব পুরষ্কার। 🥇১ম পুরষ্কার ওয়ালটন ডাবল ডোর রেফ্রিজারেটর, 🥈২য় পুরষ্কার চার্জিং স্কুটি, 🥉৩য় পুরষ্কার পাঁচটি আকর্ষণীয় বাইসাইকেল। তাই আর দেরি কেনো? আজি চলে আসুন আমাদের আউটলেটে।যোগাযোগ: থিম ওমর প্লাজা, রাজশাহী। 🥻🩱🩲🩳🧣👖👕👔🦺🥼🥽🕶️👓🧥🧦👗👘👝👜👛👠🥿🥾👡🩰👢👒🎩💄💎Call us on our Hotline : 01324-442174 ; 01324-442175; 01324-442146;01324-442147;01324-442148;01324-442149;01324-442154;01324-442155
25.5 C
Rajshahi
বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ৬, ২০২২

পুলিশ বাহিনীর পরবর্তী প্রধান কে?

- Advertisement -

টপ নিউজ ডেস্কঃ আড়াই লাখেরও বেশি সদস্যের পুলিশ বাহিনীর নেতৃত্বে নতুন কেউ আসছেন, নাকি বর্তমান আইজিপির মেয়াদ বাড়ানো হবে এ নিয়ে আলোচনা চলছে পুলিশের ভেতরে-বাহিরে। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ পুলিশের বর্তমান মহাপরিদর্শক ড. বেনজীর আহমেদের চাকরির মেয়াদ শেষ হচ্ছে। তার মেয়াদের শেষ সময়ে এসে পুলিশের পরবর্তী প্রধান হিসেবে বেশ কয়েকজন কর্মকর্তার নাম আলোচিত হচ্ছে।

পুলিশের কয়েকজন কর্মকর্তা বলছেন, আলোচনায় আছেন বর্তমান আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদ। তাকে এক বছরের জন্য চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দিতে পারে সরকার।

- - Advertisement - -

তবে আইজিপি পদে নিয়োগ পেতে পুলিশে বেশ কয়েকজন কর্মকর্তা মুখিয়ে আছেন। সেক্ষেত্রে বর্তমান আইজিপির চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ পাওয়া বেশ কঠিন। তা ছাড়া তাকে এক বছরের জন্য নিয়োগ দিলে আগামী জাতীয় নির্বাচনের আগেই চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে যাবে। তখন নতুন কাউকে নিয়োগ দিতে হবে।

-Theme Omor Plaza-

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, আগামী জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে দেশের সার্বিক আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে পুলিশ বাহিনীর ভূমিকা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। সঙ্গত কারণে পরবর্তী পুলিশ প্রধান নিয়োগের ক্ষেত্রে সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায় এই বিষয়টি গুরুত্বসহকারে বিবেচনায় নেবে।

- Advertisement -

পুলিশের বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, আইজিপি পদে নিয়োগ পাওয়ার ক্ষেত্রে সবচেয়ে এগিয়ে রয়েছেন পুলিশের বিশেষ শাখার (এসবি) প্রধান মনিরুল ইসলাম। এ ছাড়াও আলোচনায় রয়েছেন অতিরিক্ত আইজিপি ও র‌্যাবের মহাপরিচালক চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন। র‌্যাবের মহাপরিচালক হিসেবে যোগদানের আগে তিনি সিআইডি প্রধান হিসেবে সফলভাবে দায়িত্ব পালন করেন। সৎ পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবে বাহিনী ও সরকারের কাছে তার সুনাম রয়েছে। তবে তিনি আগামী বছরের ১১ জানুয়ারি অবসরে যাওয়ার কথা রয়েছে। তিনি আইজিপি হলে এ পদে মাত্র চার মাস সময় পাবেন। যেহেতু ওই বছরের শেষের দিকে জাতীয় নির্বাচন, এক্ষেত্রে তাকে রাখতে হলে মেয়াদ বাড়াতে হবে। নির্বাচনের এই সময়ে আইজিপির পদ পরিবর্তন করা পুলিশের ক্ষেত্রে একটা বড় চ্যালেঞ্জ। এ বিবেচনায় আইজিপি পদে তার আসার সম্ভাবনা খুব কম। তবে সবই নির্ভর করে সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায়ের সিদ্ধান্তের উপর।

আইজিপি পদে পুলিশের অতিরিক্ত আইজিপি এস এম রুহুল আমিন ও মো. কামরুল আহসানের নামও আলোচনায় আছে।

তবে সবচেয়ে বেশি আলোচনায় আছেন মনিরুল ইসলাম। পুলিশের বিশেষ শাখার (এসবি) প্রধান মনিরুল ইসলাম ১৫তম বিসিএস কর্মকর্তা। আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণ ও জঙ্গি দমনে তিনি অসাধারণ দক্ষতা দেখিয়েছেন। সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায়ে তার বিশেষ গ্রহণযোগ্যতাও রয়েছে। তা ছাড়া তিনি বাংলাদেশ পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার ও কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) এর প্রধান ছিলেন। ঢাকা মহানগর পুলিশের সিটিটিসি ইউনিট গঠনেও মূল ভূমিকা পালন করেছিলেন।

আলোচনায় আছেন ১২তম বিসিএস ব্যাচের কর্মকর্তা এস এম রুহুল আমিন। তিনি পুলিশ সদর দপ্তরের অতিরিক্ত আইজিপি (লজিস্টিকস অ্যান্ড অ্যাসেট অ্যাকুইজিশন) কর্মরত রয়েছেন। পুলিশের এই কর্মকর্তা জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে আইভরিকোস্ট ও দক্ষিণ সুদানসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বাংলাদেশের হয়ে কাজ করেছেন। যদিও তিনি আইজিপি পদে আলোচনায় অনেকটা এগিয়ে রয়েছেন।

আইজিপি পদে নাম শোনা যাচ্ছে অতিরিক্ত আইপিজি মো. কামরুল আহসানেরও। জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদ দমনে গড়ে তোলা পুলিশের বিশেষায়িত শাখা অ্যান্টি টেররিজম ইউনিটের (এটিইউ) প্রধান অতিরিক্ত আইজিপি।

মো. কামরুল আহসান ময়মনসিংহ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ব্যবসায় প্রশাসন বিষয়ে (এমবিএ) স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। পুলিশের এই কর্মকর্তা জাতিসংঘের শান্তিরক্ষী মিশনের ‘পুলিশ অ্যাডভাইজার’ হিসেবে সিয়েরালিওন ও সুদানে দায়িত্ব পালন করেন। সুদান মিশনের কনটিনজেন্ট কমান্ডার হিসেবে দায়িত্ব পালনের গৌরব অর্জন করেন তিনি। পাশাপাশি মিশনগুলোতে দৃষ্টান্তমূলক চাকরির স্বীকৃতিস্বরূপ ‘জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা পদক’ লাভ করেন।x

- Advertisement -

Related Articles

আপনার মন্তব্য

Latest Articles