সর্বশেষ

42.8 C
Rajshahi
বৃহস্পতিবার, জুন ১, ২০২৩

রাজনীতিকে ভালো মানুষের জন্য আকর্ষণীয় করে তুলতে পারেনি রাজনীতিকেরা:সেতুমন্ত্রী

- Advertisement -

টপ নিউজ ডেস্কঃ রাজনীতিতে ভালো মানুষকে আকৃষ্ট না করতে পারার দায় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের স্বীকার করলেন ।

তিনি বলেন, ‘রাজনীতিকেরা আকর্ষণীয় করে তুলতে পারেনি রাজনীতিকে ভালো মানুষের জন্য । আমরা যারা রাজনীতি করি, এই ব্যর্থতা, আমাদের দায়। এটা স্বীকার করতেই হবে।’

- - Advertisement - -

আজ রোববার রাজধানীর রমনায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে জাতীয় পার্টির (জেপি) ত্রিবার্ষিক সম্মেলন অধিবেশনে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন ।

পঁচাত্তরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যার পরে বাংলাদেশ উল্টো পথে যাত্রা শুরু করেছিল উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিপ্লবের বিরুদ্ধে প্রতিবিপ্লব শুরু হলো, গণতন্ত্র শৃঙ্খলিত হলো, সঙ্গে সঙ্গে রাজনৈতিক সম্পর্কে শুরু করল দেয়াল উঠতে ।

- Advertisement -

তিনি আরও বলেন, জাতীয় চার নেতার হত্যাকাণ্ড, একুশে আগস্টের হত্যাকাণ্ডে দেয়াল উঁচু থেকে আরও উঁচুতে উঠতে থাকল। কিন্তু কোনো সেতু (ব্রিজ) তৈরি হয়নি।

সরকারের সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘শেখ হাসিনা উদ্বোধন করেছেন এক দিনে একশ সেতুর । কিন্তু রাজনীতিতে আমরা কোনো সেতু নির্মাণ করতে পারিনি। রাজনৈতিক কর্ম সম্পর্কটা আমাদের থাকা উচিত ছিল।

এভাবে গণতন্ত্র বাঁচতে পারে না। গণতন্ত্রকে বাঁচাতে হলে শক্তিশালী বিরোধী দল প্রয়োজন। আমাদের দেশে এখানেই সবচেয়ে বড় দুর্বলতা। কারণ, আমরা নষ্ট রাজনীতির কাছে বারবার আত্মসমর্পণ করি।’

এ সময় রাজনৈতিক ব্যক্তিদের কথা তুলে ধরে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, নষ্ট রাজনীতি জন্ম দেয় নষ্ট মানুষের , নষ্ট রাজনীতিকেরা বাঁচিয়ে রাখে নষ্ট রাজনীতিকে । বাংলাদেশের অবস্থা হয়েছে ঠিক তা–ই। এ তো বিভক্তি রাজনীতি! এর জন্য তো মুক্তিযুদ্ধ হয়নি।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আমি মনে করি, খারাপ লোকের হাতে রাজনীতি থাকলে খারাপ হবে দেশটা । খারাপ লোকদের হাতে রাজনীতি থাকলে খারাপ লোকেরা মন্ত্রী হবে, এমপি হবে দেশ চালাবে, এতে দেশের ভালো হবে না।

রাজনীতিতে ভালো লোকদের আনতে হবে, মেধাবীদের রাজনীতিতে আনতে হবে, সৎ লোকদের রাজনীতিতে নিয়ে আসতে হবে। না হলে রাজনীতি মেধাশূন্য হয়ে যাবে। চরিত্রবানদের রাজনীতিতে নিয়ে আসতে হবে,চরিত্রহীন হয়ে যাবে না হলে রাজনীতি । এটা আমি মনেপ্রাণে বিশ্বাস করি।’

সম্পাদনায়ঃ পূরবী রায় ।

- Advertisement -

Related Articles

আপনার মন্তব্য

Latest Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker

Refresh Page