সর্বশেষ

16.5 C
Rajshahi
সোমবার, জানুয়ারি ৩০, ২০২৩

শ্রীনগরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে সংঘর্ষ, আহত ৮

- Advertisement -

শ্রীনগর (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি: শ্রীনগর উপজেলার কুকুটিয়া ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের পাঁচলদিয়া গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। ওই গ্রামের করিম সরদার (৭০) ও ফয়সাল সরদার (৩০) গংদের মধ্যে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে করিম সরদারের ভাতিজা বাকপ্রতিবন্ধি শফি সরদার (৩০) ও ভাতিজি সামসুন্নাহার বেগম (৬০) গুরুতর আহত হয়েছে। অপরদিকে ফয়সাল সরদারের চাচা উয়াসিন সরদার (৫২), চাচাতো ভাই শান্ত (২৫) ও তার ফুপা মো. ডালিম (৪৭) আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়।


স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত চিকিৎসক ডাঃ তামান্না রহমান জানান, আহতদের মধ্যে বাকপ্রতিবন্দ্বি শফি সরদার ও শমসুন্নাহার বেগমকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় রেফার্ড করা হয়েছে জানানতিনি। মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৪ টার দিকে পাঁচলদিয়া গ্রামের সরদার বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষ চলাকালীন সময়ে থামাতে গিয়ে শালিসদের ৩ জন আহন হন। তাদেরকে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।
এলাকাবাসী জানায়, ওই গ্রামের করিম সরদার গং ও ফয়সাল সরদার গংদের মধ্যে কয়েক বছর ধরে বসতবাড়ির সীমানা নিয়ে দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। এর আগেও স্থানীয়ভাবে একাধিকবার বসে সমাধান করা সম্ভব হয়নি। এরই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলাবার বিকালে সরদার বাড়িতে বিষয়টি সমাধানে শালিস বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। উপস্থিত শালিসগণদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সমাধানে জুরিবোর্ড গঠন করা হয়। সংশ্লিষ্ট জুরিবোর্ড সদস্যদের মতামত দেওয়ার সময়ই ফয়সাল সরদার উচ্চবাচ্চো কথা শুরু করলে সংঘর্ষ শুরু হয়। এতে উভয় পক্ষ কয়েক দফা সংঘর্ষে লিপ্ত হয়।

- - Advertisement - -


সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, একই দাগে ফয়সাল সরদার ও করিম সরদারের সীমানা। ওই বসতবাড়ির মাত্র ০.১৬ শতাংশ জায়গার মালিকানা দাবি করে আসছে ফয়সাল সরদার। স্থানীয়ভাবে বেশ কয়েকবার জায়গা পরিমাপ করা হয়েছে। ওই জায়গায় পাকা স্থাপনা থাকায় করিম সরদার দাবিকৃত জায়গা বাবদ আড়াই লাখ টাকাও ফয়সাল সরদারকে দিতে রাজি ছিলেন। তবে রহস্যজনক কারণে বিষয়টি এতো দিন ধরে সমাধান হচ্ছেনা। অথচ করিম সরদার ও ফয়সাল সরদার সম্পর্কে চাচা ভাতিজা হন।
ফয়সাল সরদারের কাছে এ বিষয়ে জানতে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেনি। করিম সরদারের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি স্থানীয় গণ্যমান্য শালিসগণদের রায় মেনে নিতে প্রস্তুত ছিলাম। কিন্তু ফয়সাল সরদারের কারণে এই সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়। আমি অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইগত ব্যবস্থা নেবো।
স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল কাইয়ুম মিন্টু জানান, আমরা সংঘর্ষ থামানোর চেষ্টা করেছিলাম। পরিস্থিতি আমাদের বাহিরে চলে যায়।
এ ব্যাপারে শ্রীনগর ডিউটি অফিসার এসআই মো. জাকারিয়া জানান, উভয় পক্ষ পাল্টাপাল্টি অভিযোগ দায়ের করছেন। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

- Advertisement -

Related Articles

আপনার মন্তব্য

Latest Articles