ছদ্মবেশধারী আসামীকে গ্রেফতার করলো র‍্যাব-৪

0
87

টপ নিউজ ডেক্সঃ মানিকগঞ্জ জেলার শিবালয় উপজেলায় এক কিশোরীকে ধর্ষণের মামলায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে র্যাব। গতকাল রোববার রাতে ঢাকার আশুলিয়া থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। আজ সোমবার (২৩ মে) সকালে র্যাব-৪-এর সিপিসি-৩ মানিকগঞ্জ ক্যাম্পের কমান্ডার লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আরিফ হাসান এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।
গ্রেপ্তার ওই ব্যক্তির নাম টুটুল (৩৫)। তিনি মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার অরঙ্গবাজ গ্রামের বাসিন্দা বলে জানান র্যাব। টুটুল গ্রেপ্তার এড়াতে ছদ্মবেশে দেশের বিভিন্ন স্থানে ঘুরে বেড়াতেন বলে জানায় র্যাব।
র্যাব আরো জানায়, ২০১২ সালের ২২ নভেম্বর শিবালয় উপজেলায় এক কিশোরীকে ধর্ষণ করেন টুটুল। এ ঘটনার পরের দিন কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে টুটুলকে আসামি করে মানিকগন্জের শিবালয় থানায় মামলা করেন। পুলিশ টুটুলকে গ্রেপ্তার করে। কয়েক মাস কারাগারে থাকার পর টুটুল জামিনে বেরিয়ে গা ঢাকা দেন।
এ ঘটনায় চলতি বছরের ২৮ ফেব্রুয়ারি মানিকগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল টুটুলকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দেন। পাশাপাশি ৫০ হাজার টাকা জরিমানা এবং অনাদায়ে আরও ৬ মাসের কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়। তবে রায় ঘোষণার সময় আসামি টুটুল পলাতক ছিলেন। গ্রেপ্তার এড়াতে তিনি ছদ্মবেশে টাঙ্গাইল, গাজীপুর, সাভার,ময়মনসিংহ দেশের বিভিন্ন স্থানে অবস্থান করেন।
র্যাবের কমান্ডার আরিফ হাসান বলেন, বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে টুটুল এক স্থান থেকে অন্য স্থানে পালিয়ে বেড়িয়েছেন। গোয়েন্দা নজরদারি ও গোপন অনুসন্ধানের মাধ্যমে র্যা বের একটি দল গতকাল রাতে টুটুলকে আশুলিয়া থেকে গ্রেপ্তার করেছে। আজ সকালে আসামিকে শিবালয় থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে র্যাবব।
শিবালয় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহিন সাংবাদিকদের বলেন, যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামিকে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের নির্দেশে কারাগারে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।

সম্পাদনায়ঃ শাহাদাত হোসাইন

আপনার মন্তব্য