‘বঙ্গবন্ধু­-আওয়ামী লীগ-বাংলাদেশ’ ইতিহাসে এই তিনটি নাম অমলিন

0
22
‘বঙ্গবন্ধু­-আওয়ামী লীগ-বাংলাদেশ’ ইতিহাসে এই তিনটি নাম অমলিন
সংগৃহীত

সোহেল রানাঃ বঙ্গবন্ধু­-আওয়ামী লীগ-বাংলাদেশ’ ইতিহাসে এই তিনটি নাম অমলিন, অবিনশ্বর। ইতিহাসে এই তিনটি নাম একই সূত্রে গাঁথা। তেমনি ইতিহাস, ঐতিহ্য, সাফল্য ও অর্জনের নাম বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। গণমানুষের প্রিয় দল আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। আওয়ামী লীগ মানেই বাঙালী জাতীয়তাবাদের মূল ধারা।

আরো পড়ুনঃ ‘পদ্মাকন্যা’ উপাধি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে

আওয়ামী লীগ মানেই সংগ্রামী মানুষের প্রতিচ্ছবি। বাংলাদেশের কাদা-মাটি গায়ে মাখা খেটে খাওয়া মানুষের কাফেলা। অতীতের মতো বাংলাদেশের ভবিষ্যতও আওয়ামী লীগের সঙ্গে অবিচ্ছেদ্যভাবে যুক্ত। বাঙালী জাতির মুক্তির মূলমন্ত্রে দীক্ষিত হয়ে গণতান্ত্রিকভাবে জন্ম নেয়া উপমহাদেশের প্রাচীনতম ও ঐতিহ্যবাহী বৃহৎ রাজনৈতিক দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। দেখতে দেখতে আওয়ামী লীগ ৭৪ বছরে পদার্পণ করল।

শুধু এটি বললে কম হবে, বাঙালী জাতির মুক্তির মূলমন্ত্রে দীক্ষিত হয়ে গণতান্ত্রিকভাবে জন্ম নেয়া উপমহাদেশের প্রাচীনতম ও ঐতিহ্যবাহী রাজনৈতিক দলও হচ্ছে আওয়ামী লীগ। স্বাধিকার থেকে স্বাধীনতা, সর্বশেষ সামরিক স্বৈরশাসন থেকে গণতন্ত্রে উত্তোরণের প্রতিটি অর্জনের সংগ্রাম-লড়াইয়ে নেতৃত্বদানকারী একটিই রাজনৈতিক দল, তা হচ্ছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। বাঙালী জাতির প্রতিটি অর্জনেরও দাবিদার প্রাচী ও সুবিশাল এই রাজনৈতিক দলটি।

আরো পড়ুনঃ বিএনপির শ্লোগান প্রমান করেছে তারা বঙ্গবন্ধুকে হত্যার সাথে জড়িত: খাদ্যমন্ত্রী

রোজ গার্ডেন থেকে বর্তমান ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ের (আওয়ামী লীগের বর্তমান কেন্দ্রীয় কার্য়ালয়) সুরম্য ভবন’ একটি ঐতিহ্যবাহী রাজনৈতিক দলের দীর্ঘ উত্থানের ধারাবাহিকতার ইতিহাস। পাকিস্তান আমলে বাঙালির স্বাধিকারের আন্দোলন থেকে বর্তমান আধুনিক বাংলাদেশ, এই প্রতিচ্ছবিতে দেশের অন্যতম রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠান আওয়ামী লীগ। বাঙালি জাতির স্বাধীনতাসহ অনেক অর্জন এসেছে আওয়ামী লীগের হাত ধরেই।

আজকের এই দিনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সফল প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা এবং বাংলাদেশের সকল আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীদের জানাই আন্তরিক অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা।

আপনার মন্তব্য