শেষ দিনের ভরসা সেই মুুশফিক- লিটন জুটি

0
61

টপ নিউজ ডেক্সঃ শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ঢাকা টেস্টে চরম ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়েছে বাংলাদেশ। ৩৪ রানের মধ্যে নেই হয়ে গেছে ৪ উইকেট! ‘ডাক’ মেরেছেন দুজন। ১৪১ রানে পিছিয়ে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করে টিম বাংলাদেশ। শুরু থেকে দুই ওপেনারই নড়বড়ে ছিলেন। দলের স্কোরবোর্ডে ১৫ রান যোগ হতেই বিপত্তি। আসিথা ফার্নান্দোর বলে বদলি ফিল্ডার কামিন্দু মেন্ডিসের তালুবন্দি হন তামিম। ১১ বল খেললেও তার নামের পাশে ০ রান। প্রথম ইনিংসেও তিনি এই আসিথার বলেই ‘ডাক’ মেরেছিলেন। ক্যারিয়ারে এ প্রথমবার টেস্টের দুই ইনিংসেই ‘ডাক’ মারলেন ওডিআই দলপতি।

উইকেটে আসেন নাজমুল হোসেন শান্ত। প্রথম ইনিংসের মতো তিনিও চরমভাবে ব্যর্থ। ২ রান করে জয়াবিক্রমার দারুণ থ্রোতে ফিরেন রান-আউট হয়ে। অধিনায়ক মুমিনুল হক চার নেমে কিছুই করতে পারেননি। কাসুন রাজিথার বলে উইকেটকিপারের গ্লাভসে ক্যাচ দিয়ে ফিরেন শূন্য রানে। আম্পায়ার আউট না দেওয়ায় রিভিউ নিয়ে জিতে যায় শ্রীলঙ্কা। স্কোরবোর্ডে আর ৪ রান যোগ হতেই বিদায় হন জয় (১৫)। আসিথার বলে ক্যাচ নেন কুশল মেন্ডিস।

এর আগে আজ বৃহস্পতিবার ম্যাচের চতুর্থ দিনে ৫০৬ রানে নিজেদের প্রথম ইনিংসে অল-আউট হয় শ্রীলঙ্কা। ৫ উইকেটে ২৮২ রান নিয়ে লঙ্কানরা আজ দিন শুরু করেছিল। দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ আর দিনেশ চান্দিমালের জুটি ভাঙা যাচ্ছিল না কোনভাবেই। দুজনেই তুলে নেন সেঞ্চুরি। ম্যাথুজ ২৭৪ বলে আর চান্দিমাল ১৮১ বলে তিন অংক ছুঁয়ে ফেলেন।

অবশেষে চা বিরতির পর চান্দিমালকে তামিম ইকবালের তালুবন্দি করে এই জুটি ভাঙেন এবাদত হোসেন চৌধুরী। ২১৯ বলে ১২৪ রানের ইনিংসে চান্দিমাল হাঁকিয়েছেন ১১টি চার এবং ১টি ছক্কা। ম্যাথুজ-চান্দিমালের ৬ষ্ঠ উইকেট জুটিতে এসেছে ১৯৯ রান। এরপর দ্রুত শেষ হয়ে যায় শ্রীলঙ্কার প্রথম ইনিংস। উইকেটকিপার নিরোশান ডিকাভেলাকে (৯) লিটন দাসের গ্লাভসবন্দি করে চতুর্থ শিকার ধরেন সাকিব আল হাসান। এই অল-রাউন্ডারের পঞ্চম শিকার প্রবীন জয়াবিক্রমা (০)। ক্যারিয়ারে ১৯তম বারের মতো পাঁচ বা ততোধিক উইকেট নিলেন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার।

পেসার এবাদতও কম যাননি। রমেশ মেন্ডিসকে (১০) বোল্ড করে ধরেন চতুর্থ শিকার। সাকিবের করা ১৬৬তম ওভারের প্রথম বলেই আসিথা ফার্নান্দো রান-আউট হলে ৫০৬ রানেই থেমে যায় লঙ্কান ইনিংস। তাদের লিড হয় ১৪১ রানের। ৪০.১ ওভার বল করে ১১ মেডেনসহ ৯৬ রানে সাকিব নেন ৫ উইকেট। আর ৩৮ ওভারে ৪ মেডেনসহ ১৪৮ রান দিয়ে এবাদতের উইকেট সংখ্যা ৪ টি।

সম্পাদনায়ঃ শাহাদাত হোসাইন

আপনার মন্তব্য