আবারো শিক্ষার্থীকে নামিয়ে দেয়ার অভিযোগ ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে

0
55

টপ নিউজ ডেস্কঃ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) নবাব আব্দুল লতিফ হলের এক আবাসিক শিক্ষার্থীকে মারধরের ঘটনায় অভিযুক্ত রাবির এক ছাত্রলীগ কর্মী তাসকীফ আল তৌহিদকে হল থেকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে রাবি হল প্রশাসন। আর এঘটনার সাথে জড়িত ছাত্রলীগ নেতা শামীম হোসেন ও পারভেজ হাসান জয় নামের দুই জনকে হল ত্যাগের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এছাড়াও এ ঘটনা সুষ্ঠ তদন্ত করার জন্য হলের আবাসিক শিক্ষক ড. মো. হামিদুল ইসলামকে আহ্বায়ক করে ৩ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির অন্য দুই সদস্য হলেন ড. অনিক কৃষ্ণ কর্মকার ও ড. মো. আব্দুল কাদের।

গত শুক্রবার (২৪ জুন) রাতে প্রাধ্যক্ষ পরিষদের এক জরুরি সভায় এসব সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। নবাব আব্দুল লতিফ হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. এ. এইচ. এম. মাহবুবুর রহমান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এই বিষয়টি জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, নবাব আব্দুল লতিফ হলে গত ২৩ তারিখ রাতের অনাকাঙ্খিত ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে প্রাথমিক তথ্যের ভিত্তিতে তাসকীফ আল তৌহিদকে হল থেকে সাময়িভাবে বহিষ্কার করা হলো। এছাড়াও মো. শামীম হোসেন এর শিক্ষা জীবন শেষ হওয়ায় ও পারভেজ হাসান জয় বঙ্গবন্ধু হলের নিবন্ধিত ছাত্র হওয়ায় তাদেরকে সংশ্লিষ্ট হল ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হলো এবং বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির কারণে তাদেরকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হলো।

উল্লেখ্য যে, গত বৃহস্পতিবার রাতে নবাব আব্দুল লতিফ হলের ২৪৮ নাম্বর কক্ষের আবাসিক ছাত্র মুন্না ইসলামকে মারধর করে বের করে দিয়ে আরেক শিক্ষার্থীকে তুলে দেয় ৈঐঅভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতারা। পরে প্রাধ্যক্ষ গিয়ে ওই শিক্ষার্থীকে তার নিজ সিটে তুলে দেন। তবে তখন মারধরের অভিযোগটি অস্বীকার করেন ছাত্রলীগের ওই নেতা-কর্মীরা। গত কয়েকদিন আগে ওই ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে আরেক আবাসিক শিক্ষার্থীকে নামিয়ে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে।

তবে এই বিষয়ে রাবি ছাত্রলীগ এখনো সাংগঠনিত কোনো ব্যবস্থা নেয়নি।

সম্পাদনায়ঃ শাহাদাত হোসাইন

আপনার মন্তব্য