২৫ বছর পরেও ভয়াবহ দিনটি পারেনি ভুলতে

0
39

টপ নিউজ ডেস্কঃ মাগুরছড়া ট্র্যাজেডির আজ ২৫ বছর । বছর ঘুরে ১৪ জুন এলেই মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জবাসীকে সেই ভয়াল স্মৃতির কথা মনে করিয়ে দেয় । সেদিন মধ্যরাতে বিস্ফোরণে গোটা কমলগঞ্জ কেঁপে ওঠে ।

আগুনের লেলিহান শিখায় জেলার সুনীল আকাশ লাল হয়ে ওঠে । দিগ্বিদিক ছোটাছুটি শুরু করেন প্রাণভয়ে লোকজন। তবে ২৫ বছরেও ভয়াবহ সেই দিনটির কথা এখানকার বাসিন্দারা ভুলতে পারেননি ।

১৯৯৭ সালের ১৪ জুন রাত পৌনে ২টায় মাগুরছড়া গ্যাসকূপে বিস্ফোরণে গোটা কমলগঞ্জ কেঁপে ওঠে । সেদিন প্রায় ৫০০ ফুট উচ্চতায় ওঠা আগুনের লেলিহান শিখা বিস্তীর্ণ বনভূমি এলাকা লণ্ডভণ্ড করে দিয়েছিল ।

আগুনের শিখায় গ্যাসফিল্ড সংলগ্ন লাউয়াছড়া রিজার্ভ ফরেস্ট, মাগুরছড়া খাসিয়াপুঞ্জি, বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইন, জীববৈচিত্র্য, ফুলবাড়ি চা বাগান, সিলেট-ঢাকা ও সিলেট-চট্টগ্রাম রেলপথ এবং কমলগঞ্জ-শ্রীমঙ্গল সড়কে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়।

দেশের ইতিহাসে অন্যতম ভয়াবহ সেই অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত হয় র বন ও বিপুলসংখ্যক জীববৈচিত্র্য। ক্ষতির মুখোমুখি হয় রেল ও সড়কপথ, বিদ্যুৎ লাইনসহ এ অঞ্চলের অসংখ্য স্থাপনা।

দুর্ঘটনার জন্য দায়ী মার্কিন গ্যাস উত্তোলনকারী প্রতিষ্ঠান অক্সিডেন্টাল ক্ষয়ক্ষতির আংশিক পরিশোধ করলেও বন বিভাগ কোনো ক্ষতিপূরণ পায়নি । পূর্ণ ক্ষতিপূরণ না দিয়েই ইউনিকলের কাছে হস্তান্তরের পর বিক্রি হয়েছে এ গ্যাসক্ষেত্র সর্বশেষ শেভরনের কাছে ।

ওই বনে ত্রি-মাত্রিক ভূতাত্ত্বিক জরিপ কাজ সম্পন্ন করে শেভরন ২০০৮ সালে । এতেও স্থানীয়ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন অনেকেই ।

সম্পাদনায়ঃ পূরবী রায় ।

আপনার মন্তব্য